আসুন একটু আত্মসমালোচনা করি

আসুন একটু আত্মসমালোচনা করি
* আমাদের আকিদা-বিশ্বাস কি বিশুদ্ধ তাওহিদের ওপর প্রতিষ্ঠিত আছে?
* আমাদের ইবাদত নবী -এর আর্দশের অনসুরণের পরিবর্তে প্রচলিত প্রথার অনুসরণ নয় তো?
*লেনদেনের ক্ষেত্রে আমাদের আচরণ কি নবীজী -এর লেনদেনের মতো পরিষ্কার?
* আমাদের আখলাক চরিত্রে কি রাসূল -এর অনুসরণ প্রকাশ পায়?
* আমাদের অবয়ব, পোশাক-আশাক, কাজের পন্থা-পদ্ধতি, রুচি-অভিরুচিতে নবীজীর ভালোবাসা ও অনুসরণ প্রকাশ পায় কি?
*আমাদের অস্তিত্ব, পরিবার, আত্বীয়-স্বজন, প্রতিবেশী, এলাকাবাসী বরং সমগ্র বিশ্বের জন্য কি রহমত স্বরূপ?
* আমাদের অন্তরে কি নবীজীর মতো শাহাদাতের প্রেরণা আছে? না মৃত্যুকে অপছন্দ করি?
* আমাদের কি নবীজীর মতো একটি রাতও চিরস্থায়ী জাহান্নামের পথিক অমুসলিম মানুষদের আগুন থেকে বাঁচাবার জন্য অশ্রু ঝরানোর সুযোগ হয়েছে ?
* আমাদের ভেতর নবীজীর মতো তায়েফে দাওয়াতের পথে পাথরের আঘাত খেয়েও তাদের জন্য দুআ দেয়ার হিম্মত আছে কি?
* আমরা দাওয়াতের পথে শিআবে আবী তালেব এর মতো, বছর কেন, কয়েকদিনের জন্যও কি বন্দী থাকার কল্পনা করতে পারি?
* নবীজীর মতো দাওয়াতের জন্য নিজের মাতৃভূমি ও আপনজনদের ছেড়ে হিজরতের জন্য কি আমরা প্রস্তুত আছি?
* আমরা কি নবীজীর মতো এক একজন মানুষের কাছে সত্তরবার ধিক্কার পাওয়ার পরও দাওয়াত নিয়ে যাওয়ার মতো হিম্মত করতে পারি?
* আমাদের জীবনে কি দাওয়াত এবং জিহাদের ওই মর্যাদা অর্জন হয়েছে, যা নবী এবং তাঁর সাহাবায়ে কেরামদের হয়েছিল?
এই প্রশ্নগুলোর উত্তর যদি নেতিবাচক হয়, তাহলে কোন মুখ নিয়ে, নবী -এর অনুসরণের দাবি করি।
আখেরাতের ভীতি প্রদর্শন
وَيَوْمَ يَعَضُّ الظَّـٰلِمُ عَلَىٰ يَدَيْهِ يَقُولُ يٰلَيْتَنِى اتَّخَذْتُ مَعَ الرَّسُولِ سَبِيلاً
যেদিন জালেম তার হাতকে কেটে কেটে খাবে আর বলবে হায়! আমি যদি রাসূলের সাথে রাস্তা অনুসরণ করতাম। (সুরা আল-ফুরকান-২৭)
এর থেকে বাঁচার উপায় হলো,
قُلْ هَـٰذِهِ سَبِيلِىۤ أَدْعُو إِلَىٰ اللَّهِ عَلَىٰ بَصِيرَةٍ أَنَاْ وَمَنِ اتَّبَعَنِى وَسُبْحَانَ اللَّهِ وَمَآ أَنَاْ مِنَ الْمُشْرِكِينَ
‘‘আপনি বলেদিন যে, এটা আমার পথ, আমি ডাকি আল্লাহর দিকে প্রকাশ্য প্রমাণাদির দ্বারা। আমি এবং সে যে আমার অনুসরণ করবে। ’’
নবীজীর অনুসরণ করবো এবং দাওয়াতের পথে জান-মাল বাজি লাগিয়ে দিব।

মূল. হযরত মাওলানা কালিম সিদ্দিকী দা.বা.
অনুবাদ.যুবায়ের আহমদ