বাংলা নববর্ষ অজানা বৈশাখ

বই পরিচিতিঃ বাংলা নববর্ষ অজানা বৈশাখ

ভুমিকাঃ
সকল প্রশংসা সেই মহান আল্লাহ তাআলার, যিনি এই আসমান- জমিন, গ্রহ-নক্ষত্র, সবকিছু সৃষ্টি করেছেন। সৃষ্টির সেরা বানিয়েছেন মানব জাতিকে। লক্ষ কোটি দুরূদ ও সালাম বর্ষিত হোক সকল মানুষের সর্বোত্তম আদর্শ, মানবতার মুক্তির দূত বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের উপর।
আল্লাহপাক কুরআনুল কারীমে এরশাদ করেন, “(হে মুসলিমগণ!) তোমরা সেই শ্রেষ্ঠতম দল, মানুষের কল্যাণের জন্য যাদের অস্তিত্ব দান করা হয়েছে। তোমারা পুণ্যের আদেশ করে থাক ও অন্যায় কাজের বাধা দিয়ে থাক এবং আল্লাহর প্রতি ঈমান রাখ।” – সুরা আল ইমরান-১১০
আল্লাহপাকের এই আদেশটি আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে এই পুস্তিকাটি প্রস্তুত করতে। কারণ আমি চিন্তা করলাম, আল্লাহ যদি আমাকে জিজ্ঞাস করেন, এই যুবায়ের! তোর সামনে মানুষ খারাপ কাজ করছিল, বিশেষ করে পহেলা বৈশাখে, মুসলমানের সন্তানেরা র্শিক, বেদাত, কুসংস্কৃতি ও অনৈসলামিক কার্যক্রম করছিল। তাদের অসৎ কাজ থেকে বাচানোরা জন্য কি করেছিস? এই জিজ্ঞাসার কিঞ্চিত হলেও যেন জওয়াব দেয়া যায়, আমার মুসলিম বাঙালী ভাই-বোনদের কল্যাণের উদ্দেশ্যেই এই ক্ষুদ্র পুস্তিকাটি পাঠকের সামনে পেশ করলাম।
নওমুসলিম বালিকা ‘হিরার’ মুসলমান হওয়ার কারণে শহিদ হওয়া এবং এ শাহাদাত তার হত্যাকারী চাচার মুসলমান হওয়ার মাধ্যম হওয়ার সত্য ঘটনাটি পুস্তিকার শেষে এ আশায় সংযুক্ত করলাম যাতে অন্তত আমাদের প্রায় মৃত মুসলিম অনুভূতিতে কিছুটা হলেও ঘা লাগে।
পুস্তিকাটি লিখতে অনেকেই সহযোগিতা করেছেন, বিশেষ করে দু একজনের নাম না নিয়েই পারছি না। তাদের মধ্যে একজন হলেন আমার বন্ধুবর জনাব মোঃ মামুনূর রশীদ সাহেব, তিনি আমাকে বইটি প্রস্তুত করতে তাগাদা দিয়ে ও তথ্য সংগ্রহ করে সহযোগিতা করেছেন এবং প্র“ফ দেখে সহযোগিতা করেছেন, আমার শ্রদ্ধেয় অন্তরঙ্গ বন্ধু আলহাজ ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম ও পরম শ্রদ্ধেয় বড় ভাই প্রফেসর তারেক মুহাম্মদ শামসুল আরেফীন সাহেব, মুসাদ্দেক এবং ¯েœহের হাসান, ওমর, রইস, মামুন। আল্লাহ সকলকে উত্তম প্রতিদান দান করুন। এবং দ্বীনের দা‘য়ী হিসেবে কবুল করুন।
মানুষ হিসেবে ভুল থাকতেই পারে, যদি কোনো ভুল-ত্র“টি দৃষ্টিগোচর হয়, জানালে কৃতজ্ঞ থাকবো। পরিশেষে মুনাজাত করি, হে আল্লাহ! আপনি লেখক, প্রকাশক, পাঠক-পাঠিকা সকলকে পাক্কা মুসলমান বানান এবং প্রকৃত মুসলমান হয়ে মৃত্যুবরণ করার তাওফিক দান করুন। আপনার সন্তুষ্টি ও জান্নাত দান করুন এবং দ্বীনি খেদতম আঞ্জাম দেয়ার তওফিক দিন। আমীন ॥

যুবায়ের আহমদ
০৪/০৪/২০১৩ ইং

লেখকঃ
যুবায়ের আহমদ
পরিচালক : ইসলামী দাওয়াহ্ ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ
মান্ডা শেষ মাথা, মুগদা, ঢাকা-১২১৪
০১৯১৭ ৫৯৭ ৫৫১

প্রকাশকালঃ
তৃতিয় সংস্করণ : এপ্রিল -২০১৪
প্রথম প্রকাশ : এপ্রিল-২০১৩

ডাউনলোডঃ
এখানে ক্লিক করুন! অনলাইনে পড়ুন